রো'গা-মোটা-লম্বা-বেঁটে ইত্যাদি বিচার্য ছিল না, যখন এরা সাত পাকে বাঁ'ধা পড়েছিলেন। বিচার্য ছিল শুধুই প্রেম। তবুও সেলেব তো… চর্চা হবেই। শুধু সেলেব বললে ভুল, এককথায় আন্তর্জাতিক তারকা।

সাধারণত, একটি সামাজিক ধারণা আছে, স্ত্রীরা স্বামীর থেকে বেঁটে হবে। কেন? ব্যাখ্য নেই। হয়তো এটিও একটি পুরুষতান্ত্রিক বিধি। কিন্তু তারকাদের স্ত্রীরাই লম্বা। স্বামী স্ত্রীর চেয়ে বেঁটে।

শচীন টেন্ডুলকার : এমনিতেই ক্রিকেট দুনিয়ায় তিনি লিটল মাস্টার। সাংসারিক জীবনেও। অঞ্জলি টেন্ডুলকার শচীনের চেয়ে বেশ অনেকটাই লম্বা। ১৯৯৫ সালে যখন তাদের বিয়ে হয়েছিল, তখনও এই নিয়ে কম চর্চা হয়নি। অঞ্জলী শচীনের চেয়ে বয়সেও বড়।

রবার্ট ভঢরা : কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধীর কন্যা প্রিয়াঙ্কা ভঢরার স্বামী রবার্ট ভঢরা। ইনিও স্ত্রীর চেয়ে বেশ খানিকটা বেঁটে। সেলেব্রেটি জামাইদের মধ্যে অন্যতম সনিয়া গান্ধীর জামাই পেশায় ব্যবসায়ী।

কুণাল নায়ার ও নেহা কাপুর : ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ অভিনেতা কুণাল নায়ার ও সাবেক ফেমিনা মিস ইন্ডিয়া নেহা কাপুরের প্রেম কাহিনি বহুল চর্চিত। এরা আপাতত সুখী দম্পতি। কুণালের থেকে অনেকটাই লম্বা নেহা।