করো’না ভা’ইরাসের কারণে ঠান্ডা পানীয়তে এখন বেশিরভাগ মানুষ চুমুক দিচ্ছেন না। শ’রীরের অমঙ্গল যে পানীয় ডেকে আনে, সেই পানীয়ই আবার আপনাকে দুঃসাধ্য সাধন ক’রতে সাহায্য করে। এমন এমন ঘরোয়া কাজে এটি ব্যবহার করা যায়, জানলে অ’বাক হবেন।

১) প্রত্যেকের বাড়িতে এমন বাসনপত্র নিশ্চয়ই আছে যার পোড়া দাগ কিছুতেই উঠতে চায় না। হাজার মাজলেও বাসনের তলাটা কালোই থেকে যায়। এক্ষেত্রে ঠান্ডা পানীয় অব্য’র্থ। অ’বাক লাগলেও একথা সত্যি। পোড়া বাসনে একটু কোল্ড ড্রিঙ্ক ফে’লে কয়েক ঘণ্টার জন্য রেখে দিন। তারপর ধুয়ে নিলেই মিলবে পরি’ষ্কার চকচকে বাসন। ঠান্ডা পানীয়তে থাকা অ্যাসিডই এই কেরামতি করে দেখায়।

২) বাড়িতে জমিয়ে পার্টি করছেন। এমন সময় বারবিকিউ সস শেষ! এদিকে বাড়ি ভর্তি অতিথি। এমন সময় আপনার ত্রাতা হতে পারে কোল্ড ড্রিঙ্ক। সামান্য কেচা’প ও একটু টাডা মেশালেই বারবিকিউ সস রেডি।

৩) জামায় কালির দাগ মে’টাতেও খুব ভাল কাজে দেয় ঠান্ডা পানীয়। পেনের কালি যে জায়গায় লে’গেছে সেখানটা একটু কোল্ড ড্রিংকে চুবিয়ে রেখে দিন। তারপর তা সামান্য ঘষে নিয়ে সার্ফ দিয়ে পরি’ষ্কার করে নিন। দেখবেন কালির দাগ উধাও।

৪) চুল পরিচর্যার ক্ষেত্রেও ঠান্ডা পানীয়র জুড়ি মেলা ভার। শুনতে আজব লাগলেও এ কথা সত্য। এই ধ’রনের পানীয়তে বাবলস থাকে ফলে তা চুলের জে’ল্লা বাড়াতে সাহায্য করে।

৫) মোবাইলে এখন ছবি এডিটিংয়ের হাজার অপশন রয়েছে। কিন্তু জা’নেন কি? নতুন ছবি এককালে ঠান্ডা পানীয়র মাধ্যমেই ‘ভিনটেজ মোড’-এ রূপান্তরিত করা হত। কোল্ড ড্রিংকসের অ্যাসিডই তা ক’রতে সাহায্য করে।