আমাদের শরী’রের গুরু’ত্বপূর্ণ একটি অ’ঙ্গ হচ্ছে লি’ভার। এই লি’ভারে যত্ন অপরিহার্য। লি’ভার সু’স্থ আছে কি নেই তা বোঝা খুব মুশকিল। লি’ভার খুব মা’রাত্ম’কভাবে আ’ক্রান্ত না হলে মানুষ টের পায় না যে তার লি’ভার অসু’স্থ হয়েছে।

আমাদের দেশে লি’ভারের রো’গীরা কখনো লি’ভারের জন্য ডাক্তারের কাছে যায় না। বরং অন্য রো’গের চিকিৎ’সা ক’রতে গিয়ে ধ’রা প’ড়ে যে তার লি’ভার আ’ক্রান্ত হয়েছে। যখন বুঝতে পারে তখন বেশি কিছু করার থাকে না।

লি’ভার সিরোসিস হলে লি’ভার ফেইলিউর হয়ে পে’টে পানি চলে আসে, জন্ডিস হচ্ছে, অ’জ্ঞান হয়ে যাচ্ছে তখনই তারা ডাক্তারের কাছে যায়। তবে লি’ভারের রো’গ হলে পে’টের ডান পাশে হালকা ব্যা’থা হয়, গ্যাসের স’মস্যা হয়, খাওয়া দাওয়ায় রুচি থাকে না ইত্যাদি স’মস্যা হয়।

না বললেই নয়, যেসব লি’ভার রো’গী আমাদের কাছে আসেন তারা ঘ’টনাচক্রে আসেন। জ্বর হলে জ্বরের ডাক্তারের কাছে দৌঁড়ে মানুষ যায় কিন্তু লি’ভারের অসুখ নিয়ে দৌঁড়ে লি’ভারের ডাক্তারের কাছে যাওয়ার পরিমাণ কম।

বি ভা’ইরাস বা সি ভা’ইরাসের ক্ষেত্রে যেটা হয়, টিকা দিতে গেলে বা আর্মির মিশনে যাওয়ার সময়, বিদেশ যাওয়ার সময় চেকআপ ক’রতে গেলে তখন তারা ডাক্তারের কাছে আসে। ফ্যাটি লি’ভারের ক্ষেত্রে যা হয়, আলট্রাসনোগ্রাম ক’রতে গিয়ে যখন দেখে লি’ভারে ফ্যাট, তখন তারা আমাদের কাছে আসে।

লি’ভার রো’গে আ’ক্রান্ত হয়ে যদি লি’ভার ফেইলিউর হয়ে যায় তখন কিন্তু চিকিৎ’সার আর কোনো সুযোগ থাকে না। তখন আম’রা সাপো’র্টেড ট্রিটমেন্ট করে লি’ভার রো’গীকে ভাল রাখি। হেপাটাইটিস বি, বি ভা’ইরাস, সি ভা’ইরাস, ফ্যাটি লিভার- এসব রো’গীকে যদি আম’রা প্রাথমিক পর্যায়ে পাই তাহলেও চিকিৎ’সা করে ভাল করা সম্ভব।

কিন্তু যদি শেষ পর্যায়ে চলে যায় তাহলে চিকিৎ’সার সুযোগ এই মুহূ’র্তে আমাদের দেশে নেই। লিভার সিরোসিস বা অন্য কারণে লিভার ফেইলিউর হলে চিকিৎ’সা হচ্ছে লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট বা প্রতিস্থাপন করা।

লেখক: অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব
চেয়ারম্যান, হেপাটোলজী বিভাগ, বিএসএমএমইউ।